Media & Public Relation Division
Organogram

 

 

ভূমিকাঃ ১৯৭৬ সালে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের জনসংযোগ অফিসটি কার্যক্রম শুরু করে। প্রথমে ডিবি অফিসেই ইন্সপেক্টর প্রশাসনের নেতৃত্বে এবং পরবর্তী সময় এসি ডিবি প্রশাসনের নেতৃত্বে সকল কার্যক্রম পরিচালিত হতো। জনসংযোগ অফিসটি একটি আধাপাকা ভবনে ২০০৪ সালে বর্তমান ৩৬ ক্যাপ্টেন মনসুর আলী সরণী, রমনায় স্থানান্তরিত হয়। ২০০৬ সালে এডিসি, মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স পদ তৈরী হয়। ২০১১ সালে পুরাতন ভবনটি ভেঙ্গে নতুন ভবন তৈরি করা হয়। ডিএমপি’র কমিশনার জনাব বেনজীর আহমেদ বিপিএম (বার) গত ১৫ অক্টোবর ২০১১ তারিখে নবনির্মিত ভবনটি উদ্বোধন করেন। ২০১২ সালের ১৫ অক্টোবর উপ-পুলিশ কমিশনার, মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স পদ তৈরী হয়। ২০১২-২০১৩ অর্থ বছরে ভবনটির ২য় তলা উদ্বোধন করা হয়। এই অফিস থেকে বর্তমানে ডিএমপি’র জনসংযোগ বিষয়ক যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

 

অফিসভবন ও আধুনিক সুবিধাসমূহঃ ডিএমপি’র মিডিয়া সেন্টারের বিদ্যমান আধুনিক সুযোগ সুবিধা দেশের সংবাদ মাধ্যমের ইতিহাসে এক গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সৃষ্টি করে। মিডিয়া সেন্টারে তাৎক্ষনিক ব্রিফিং প্রদানের জন্য তৈরী করা হয়েছে একটি অত্যাধুনিক মিডিয়া ব্রিফিং রুম। একশত আসন বিশিষ্ট এ ব্রিফিং রুমে আধুনিক সাউন্ড সিস্টেম, ওয়াইফাইসহ অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা বিদ্যমান রয়েছে। সার্বক্ষণিক সংবাদ সংগ্রহ ও প্রেরণের জন্য সাংবাদিকদের সুবিধার্থে ২টি কম্পিউটার সম্বলিত একটি কক্ষ রয়েছে। সেখান থেকে সব সময় তাদের অফিসে সংবাদ প্রেরণ করা সম্ভব। সংবাদ পত্রের পাশাপাশি ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় গুরুত্ব প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতানুগতিক সংবাদ পত্র কাটিং ব্যবস্থাকে ডিজিটালাইজড করা হয়েছে। সংবাদ পত্র কাটিং সংরক্ষণের জন্য সফ্টওয়্যার তৈরী করা হয়েছে। এই সফ্টওয়্যরের মাধ্যমে তারিখ, অপরাধের শ্রেণী বা পত্রিকার নাম এর সাহায্যে যে কোন ঘটনার তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করা হচ্ছে। ইলেকট্রনিক মিডিয়া মনিটরিংয়ের জন্য এখানে একটি অত্যাধুনিক মিডিয়া মনিটরিং সিস্টেম  চালু করা হয়েছে। এখানে একই সাথে ২৪ টি টেলিভিশন স্টেশন ৩টি বিদেশি চ্যানেলসহ মনিটর করা হচ্ছে। যে কোন নির্দিষ্ট দিনের ঘটনা ভিত্তিক ফুটেজ এ ব্যবস্থা থেকে পাওয়া যাচ্ছে। এখানে একটি এডিটিং প্যানেল স্থাপন করা হয়েছে যার মাধ্যমে পুলিশ বাহিনীর সংশ্লিষ্ট যে কোন ধরণের তথ্যভিত্তিক প্রামান্য চিত্র তৈরী করা সম্ভব হচ্ছে। প্রয়োজনে যে কোন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার ফুটেজ সংগ্রহের জন্য পর্যাপ্ত ভিডিও ও স্টীল ক্যামেরা রয়েছে, যা বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিনে যেকোন অনাকাঙ্খিত ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে সনাক্ত করার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়। ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় বেওয়ারিশ লাশের ছবি তোলা ও তাদের তথ্য সংরক্ষণ করার কাজটি করছে মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স ।

 

স্থির চিত্র/ ভিডিও চিত্র সংগ্রহঃ বিভিন্ন দলের আহুত হরতাল, অবরোধ, ইত্যাদি রাজনৈতিক ও সামাজিক অনুষ্ঠানের তোলা স্থির ও ভিডিও চিত্র যেমন, (ক) পুলিশের আভ্যন্তরীণ অনুষ্ঠান (খ) জাতীয় ২১ ফেব্রুয়ারি, বই মেলা, বাণিজ্য মেলা, বিশ্ব ইজতেমা, বৈশাখী মেলা, ১৬ই ডিসেম্বর, ২৬ শে মার্চ ইত্যাদি দিবস গুলোর চিত্র ধারণ ও সংরক্ষণ করা হয়। পরবর্তী সময়ে স্থির চিত্র এবং ভিডিও ফুটেজগুলো প্রথমে দিন, মাস এবং বছর অনুসারে সিডি, ডিভিডিতে সংরক্ষণ করা হয়। হার্ডকপি করে ইভেন্ট ভিত্তিক এ্যালবামে সংরক্ষণ করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন মামলার আলামত সংগ্রহ ও  সংরক্ষণের জন্যও ভিডিও ছবি সংরক্ষণ করা হয়, যা সাক্ষ্য হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে।

 

ছবি রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবহারঃ সকল গ্রেফতারকৃত অপরাধীদের ছবি সফ্ট কপি হিসেবে সংরক্ষণ করা হয়। এছাড়াও প্রিন্ট করে এ্যালবামে হার্ড কপিও সংরক্ষণ করা হয়। বর্তমানে এখানে একটি ডিজিটাল আর্কাইভ চালু করা হয়েছে।  উক্ত আর্কাইভে দিন ও মাস অনুযায়ী সকল প্রকার ছবি ও ভিডিও ফুটেজ সংরক্ষণ করা হয়  যাতে প্রয়োজনে দ্রুত খুঁজে বের করা সম্ভব।

 

ডকুমেন্টরীঃ মিডিয়া এন্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ বিভিন্ন ধরণের ডকুমেন্টরী তৈরি করা হয়। উক্ত ডকুমেন্টরী বিভিন্ন সময়ে ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়। যেমন-৪১তম প্রতিষ্ঠা দিবস, ট্রাফিক সচেতনতামূলক, মাদক ও ফরমালিন এর উপর ডকুমেন্টরী । এছাড়াও বিভিন্ন ধরণের লিফলেট, স্টিকার, কমিশনার মহোদয়ের ব্যক্তিগত শুভেচ্ছা কার্ড/দাওয়াত পত্র তৈরি ও বিতরণ করা হয়েছে।

 

তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারঃ ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশকে আরও জনবান্ধব ও গণমুখী করার প্রত্যয়ে এখানে DMP Web site, DMP News ও Facebook চালু করা হয়েছে। আধুনিক বিজ্ঞান মনস্ক নাগরিকদের সেবা দেয়ার মানসেই ডিএমপি’র এ উদ্যোগ।

  • DMP Web site: বাংলাদেশ পুলিশ একটি সেবামূলক কার্যক্রম। পুলিশের সকল সংবাদ আপডেট , সেবার খাত ও গ্রহনের উপায়, পুলিশের বিভিন্ন শাখা ইত্যাদি সম্পর্কে সঠিক নির্দেশনার জন্য এই DMP Web site www.dmp.gov.bd যুগান্তকারী অবদান রাখছে। এছাড়া ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট পরিচিতি, অর্গানোগ্রাম, সাবেক কমিশনারগণের পরিচিতি, নোটিশ বোর্ড, অসনাক্ত মৃতদেহ, প্রতিদিনের বাজার দর, পুলিশ ক্লিয়ারেন্সসহ সচেতনতা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য এখানে সন্নিবেশিত করা হয়। ডিএমপি’র তথ্যকে হাতের মুঠোয় পেীঁছে দিয়েছে মোবাইল এ্যাপস। তথ্য প্রত্যাশীগণ এখানে পাচ্ছেন ছবিসহ তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসীর নাম, ডিএমপি’র মাসিক অপরাধ পরিসংখ্যান, অপরাধ মানচিত্র, প্রেস রিলিজ, সংবাদ আপডেট, কেস ফলো-আপ, জরুরী সেবার নম্বরসমূহ, ৪৯টি থানার নম্বর, হারানো ও প্রাপ্তি সংবাদ ইত্যাদি।
     
  • DMP News: পুলিশ সম্পর্কে  নানা নেতিবাচক ধারণা, বিভ্রান্তি ও গুজবের অবসান ঘটিয়ে জনমনে ইতিবাচক ধারণা সৃষ্টি ও জনমত গঠনে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে www.dmpnews.org Online পত্রিকাটি। সকল ধরণের সংবাদ যেমনঃ জাতীয়, পুলিশ, অপরাধ, অর্থনীত, বিনোদন, খেলাধুলা, আন্তর্জাতিক, তথ্যপ্রযুক্তি, প্রেসবক্স, যোগাযোগ ও অন্যান্য। ডিএমপি নিউজে প্রতিমাসে গড়ে ৬০০টি  এবং প্রতিদিন ২০টি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।
  • Facebook: ব্যাপক জনসম্পৃক্ততার কারণে ডিএমপি’র সেবা ফেসবুকের মাধ্যমেও দেয়া হচ্ছে। ডিএমপি’র ফেসবুক পেইজটি ঢাকা মহানগরবাসীর সাথে ডিএমপি’র সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে কাজ করে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কার্যক্রমের সচিত্র প্রতিবেদন, উদ্ধারজনিত সাফল্য, জনস্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞপ্তি, হারানো বিজ্ঞপ্তি, প্রাপ্তি সংবাদ প্রচার করা হয়। ঢাকা মহানগরসহ সারাদেশের মানুষ এ পেইজে তাদের মতামত ও পরামর্শ দিয়ে থাকে। তারা তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথাও ফেসবুকে জানায়। মিডিয়া সেন্টার থেকে সংশ্লিষ্ট থানায় যোগাযোগ করে সেই সকল সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হয়।  পুলিশের কার্যক্রমে জনমতের প্রতিফলন মামলা বন্ধ, মামলার অগ্রগতিসহ পুলিশি সেবার বিস্তৃতি ঘটাতে www.facebook.com/dmp.dhaka গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।
  • বিজনেস এসএমএসঃ অতিদ্রুত ও সংক্ষিপ্ত সময়ের মধ্যে যেকোন সংবাদ সাংবাদিকদের নিকট পৌঁছে দেয়া হয়। যেখানে একই সময়ে সকল অপরাধ বিষয়ক প্রতিবেদক তথ্য ও সংবাদ পেয়ে যাচ্ছেন। পূর্বে মোবাইলের মাধ্যমে এসএমএস প্রেরণ করা হতো যাতে দীর্ঘ সময় ও অর্থ ব্যয় হতো।

 

তথ্য অধিকার আইন মোতাবেক গৃহীত ব্যবস্থাঃ তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর প্রতি অনুগত থেকে জনগণের প্রয়োজনে তথ্য অনুসন্ধানে নিয়োজিত এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন ২০০৬ এর বিধি বিধান অনুসরণ পূর্বক অত্র প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত। এখান থেকে তথ্য চেয়ে পাওয়া যায়নি এমন কোন অভিযোগ নেই।
উল্লেখ্য, প্রেস রিলিজ, প্রেস কনফারেন্স ও প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ অত্রাফিস হতে সম্পাদন করা হয়।